দৈনিক বরিশাল ২৪বেওয়ারিশ মানুষদের সেবায় হাসপাতাল চালুর জন্য প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা | দৈনিক বরিশাল ২৪

প্রকাশিতঃ জুন ১৩, ২০২০ ৩:২০ পূর্বাহ্ণ
A- A A+ Print

বেওয়ারিশ মানুষদের সেবায় হাসপাতাল চালুর জন্য প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা

সোহেল আহমেদ, চট্টগ্রাম থেকেঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মমতাময়ী মা আখ্যায়িত করে রাস্তায় পরে থাকা হতদরিদ্র, পঁচন ধরা অসহায় বেওয়ারিশ মানুষদের আলাদাভাবে চিকিতসা সেবা দেয়ার জন্য দেশে একটি বেওয়ারিশ হাসপাতাল নির্মাণের জন্য আকুল আদেবন জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের মানবিক ইউনিট এর টিমলীডার শওকত হোসেন।

বরিশাল থেকে প্রকাশিত জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল দৈনিক বরিশাল২৪.কম-এর মানবতার সেবায় এক শওকত হোসেন এর অব্যহত সাফল্যের গল্প শিরোনামে এক ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠানে জনাব শওকত তার কর্মজীবনের নানা অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে বেওয়ারিশ হাসপাতালের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, আমরা সিএমপির মানবিক পুলিশ ইউনিট অসহায় বিপদগ্রস্থ মানুষদের চিকিতসা সেবা দিয়ে আসছি। এসব মানুষগুলোর অধিকাংশের সামান্য মাথা গোজার ঠাই পর্যন্ত নেই। ফলে বেওয়ারিশ মানুষগুলো অসুখ বিসুখ নিয়ে এভাবে রাস্তা পরে থেকে বৃষ্টিতে ভিজে মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটফট করছে।

শওকত হোসেন সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বেওয়ারিশ হাসপাতাল নির্মাণের দাবী করে বলেন, সরকার যথেষ্ট আন্তরিক, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যথেষ্ট চেষ্টা করছেন মানুষের জন্য কাজ করছেন। মানবতার সেবাগুলো প্রচারে আপনারা যারা ( যারা মিডিয়ায় কাজ করছেন) কাজ করছেন, তাদের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করছি। আমি বিশ্বাস করি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত আমার এ দাবী (বেওয়ারিশ হাসপাতাল নির্মাণ) পৌছালে অবশই দেশে বেওয়ারিশ হাসপাতাল নির্মিত হবে।

সাংবাদিক মনিরুজ্জামান এর উপস্থাপনায় লাইভ অনুষ্টানে হাসপাতালের নৈরাজ্য ঠেকানোর জন্য সরকার কি পদক্ষেপ নিতে পারেন বলে মনে করেন এমন এক প্রশ্নের উত্তরে মানবিক পুলিশ অফিসার শওকত হোসেন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আমি সেলুট ( হাত উঠিয়ে ) জানাই। মানবতার মা প্রধানমন্ত্রী চিকিতকদের মানবতার বিষয়ে অবগত করেছেন। তিনি বলেন, কতিপয় চিকিতসক ছাড়া অন্য সবাই ভালো সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

শওকত হোসেন বলেন, বর্তমান সময়ে গৃহিত পদক্ষেপ হটলাইনে এরা কল দিয়ে কথা বলতে পারে না ৷ কারন এদের নিকট মোবাইল নেই ৷ আর ঔষধই বা কে দিবে ৷ মনে রাখতে হবে এরা আক্রান্ত হলে কিন্তু আমাদেরও নিস্তার নেই ৷ ওদের (বেওয়ারিশ) অভিশাপে আমরা সুস্থ থাকতে পারবনা। তাই বিষয়টি যথাযথ গুরুত্বের সাথে স্বাস্থ্য রিলেটেড কতৃপক্ষের নজরে নিয়ে আসার জন্য সবাইকে বিনীত অনুরোধ জানান সিএমপির গর্বিত  মানবিক পুলিশ ইউনিট এর টিম লিডার।

হাসপালগুলোতে কিছু চিকিতসকরা রোগীদের সাথে কুকুর বিড়ালের মত খারাপ আচরণ করছে। আমি যখন একজন অসহায় রোগীকে নিয়ে হাসপাতালে যাই তখন দেখি কিছু ডাক্তাররা কিরকম খারাপ আচরণ করছে।  হাসপালের অনেক ডাক্তার মায়ের সমতুল্য রোগীদের সাথে চরম দূর্ব্যাবহার করছে। এদের জন্য ভালো ডাক্তারদেরও সুনাম নষ্ট হচ্ছে। খারাপ আচরণকারী এইসব ডাক্তারদের মানবতার বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রয়োজন। মানবতা কি জিনিস সে বিষয়ে তাদেরকে শেখাতে হবে। কারণ মানবতা না জানলে ডাক্তারি করা যাবে না। ডাক্তারি করতে হলে আগে মানবিকতা থাকতে হবে।

পুলিশ বাহিনীর মত দেশের সেনা, নৌসহ সমস্ত প্রশাসনিক বাহিনীতে এরকম মানবিক ইউনিট চালু করার দাবী করেন সুপারম্যান খ্যাত শওকত হোসেন বলেন, আমি আমার পেশাগত দ্বায়িত্ব পালন এর সময় শেষে যখন নিজের রেষ্ট এর সময়টুকু আমি অসহায় বেওয়ারিশ মানুষের জন্য কাজ করছি। তিনি বলেন, আমি আমার মানবিকতার দান থেকে এ কাজটা করি। পুলিশে আমার যে কাজ তা আমি সুন্দর করে বুঝিয়ে দেই। যে সময়টা আমার পরিবারে ব্যায় করার কথা, যে সময়টা আমার পদোন্নতি পাবার জন্য পড়ার কথা ,সে সময়টা আমি মানবসেবায় খরচ করি। আমি  স্বপ্ন দেখি সুন্দর বাংলাদেশের।

পুলিশ বাহিনীতে কেনো চাকরি নিলেন এমন এক প্রশ্নে শওকত হোসেন বলেন, বাংলাদেশে মানুষের কাছা কাছি গিয়ে সেবা দেওয়া পথ একমাত্র পুলিশ বাহিনী। পুলিশ যে সেবা দেয় তা অন্য কোন বাহিনীতে আপনি সরাসরি পাবেন না উল্লেখ করে শওকত হোসেন বলেন, পুলিশ বিদেশেও অনেক প্রশংসনীয় কাজ করছে। সরকারি দ্বায়িত্ব পালন ছাড়াও পুলিশ মানুষের ঘরে গিয়ে খাবার পৌছে দিচ্ছে। মানুষের সেবায় পুলিশ কি না করছে এমন প্রশ্ন ছুড়ে দেন শওকত হোসেন।

সিএমপির কমিশনার জনাব মাহাবুবুর রহমানের মানুষের কল্যাণে নিরলস প্রচেষ্টার কথা উল্লেখ করে শওকত হোসেন বলেন, মানবতার সেবায় তার বিভিন্ন নির্দেশনা আমাদের কাজে গতি বৃদ্ধি পাই।

শওকত হোসেন, মানবিক সহায়তায় সামান্য হলেও অসহায় দুস্ত মানুষের উপকার করতে সব শ্রেনী পেশার মানুষদের সাধ্যমত এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে বলেন, অন্তত একদিনের বেতন দিয়ে হলেও মানবতার সেবায় আসুন। এ সময় তিনি চলমান করোনা কালের নিরাপদে থাকার জন্য নিয়মিত স্বাস্থবিধি মেনে চলার প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন।

দৈনিক বরিশাল ২৪

বেওয়ারিশ মানুষদের সেবায় হাসপাতাল চালুর জন্য প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা

শনিবার, জুন ১৩, ২০২০ ৩:২০ পূর্বাহ্ণ | আপডেটঃ জুন ১৩, ২০২০ ৩:৪২ পূর্বাহ্ণ

সোহেল আহমেদ, চট্টগ্রাম থেকেঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মমতাময়ী মা আখ্যায়িত করে রাস্তায় পরে থাকা হতদরিদ্র, পঁচন ধরা অসহায় বেওয়ারিশ মানুষদের আলাদাভাবে চিকিতসা সেবা দেয়ার জন্য দেশে একটি বেওয়ারিশ হাসপাতাল নির্মাণের জন্য আকুল আদেবন জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের মানবিক ইউনিট এর টিমলীডার শওকত হোসেন।

বরিশাল থেকে প্রকাশিত জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল দৈনিক বরিশাল২৪.কম-এর মানবতার সেবায় এক শওকত হোসেন এর অব্যহত সাফল্যের গল্প শিরোনামে এক ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠানে জনাব শওকত তার কর্মজীবনের নানা অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে বেওয়ারিশ হাসপাতালের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, আমরা সিএমপির মানবিক পুলিশ ইউনিট অসহায় বিপদগ্রস্থ মানুষদের চিকিতসা সেবা দিয়ে আসছি। এসব মানুষগুলোর অধিকাংশের সামান্য মাথা গোজার ঠাই পর্যন্ত নেই। ফলে বেওয়ারিশ মানুষগুলো অসুখ বিসুখ নিয়ে এভাবে রাস্তা পরে থেকে বৃষ্টিতে ভিজে মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটফট করছে।

শওকত হোসেন সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বেওয়ারিশ হাসপাতাল নির্মাণের দাবী করে বলেন, সরকার যথেষ্ট আন্তরিক, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যথেষ্ট চেষ্টা করছেন মানুষের জন্য কাজ করছেন। মানবতার সেবাগুলো প্রচারে আপনারা যারা ( যারা মিডিয়ায় কাজ করছেন) কাজ করছেন, তাদের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করছি। আমি বিশ্বাস করি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত আমার এ দাবী (বেওয়ারিশ হাসপাতাল নির্মাণ) পৌছালে অবশই দেশে বেওয়ারিশ হাসপাতাল নির্মিত হবে।

সাংবাদিক মনিরুজ্জামান এর উপস্থাপনায় লাইভ অনুষ্টানে হাসপাতালের নৈরাজ্য ঠেকানোর জন্য সরকার কি পদক্ষেপ নিতে পারেন বলে মনে করেন এমন এক প্রশ্নের উত্তরে মানবিক পুলিশ অফিসার শওকত হোসেন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আমি সেলুট ( হাত উঠিয়ে ) জানাই। মানবতার মা প্রধানমন্ত্রী চিকিতকদের মানবতার বিষয়ে অবগত করেছেন। তিনি বলেন, কতিপয় চিকিতসক ছাড়া অন্য সবাই ভালো সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

শওকত হোসেন বলেন, বর্তমান সময়ে গৃহিত পদক্ষেপ হটলাইনে এরা কল দিয়ে কথা বলতে পারে না ৷ কারন এদের নিকট মোবাইল নেই ৷ আর ঔষধই বা কে দিবে ৷ মনে রাখতে হবে এরা আক্রান্ত হলে কিন্তু আমাদেরও নিস্তার নেই ৷ ওদের (বেওয়ারিশ) অভিশাপে আমরা সুস্থ থাকতে পারবনা। তাই বিষয়টি যথাযথ গুরুত্বের সাথে স্বাস্থ্য রিলেটেড কতৃপক্ষের নজরে নিয়ে আসার জন্য সবাইকে বিনীত অনুরোধ জানান সিএমপির গর্বিত  মানবিক পুলিশ ইউনিট এর টিম লিডার।

হাসপালগুলোতে কিছু চিকিতসকরা রোগীদের সাথে কুকুর বিড়ালের মত খারাপ আচরণ করছে। আমি যখন একজন অসহায় রোগীকে নিয়ে হাসপাতালে যাই তখন দেখি কিছু ডাক্তাররা কিরকম খারাপ আচরণ করছে।  হাসপালের অনেক ডাক্তার মায়ের সমতুল্য রোগীদের সাথে চরম দূর্ব্যাবহার করছে। এদের জন্য ভালো ডাক্তারদেরও সুনাম নষ্ট হচ্ছে। খারাপ আচরণকারী এইসব ডাক্তারদের মানবতার বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রয়োজন। মানবতা কি জিনিস সে বিষয়ে তাদেরকে শেখাতে হবে। কারণ মানবতা না জানলে ডাক্তারি করা যাবে না। ডাক্তারি করতে হলে আগে মানবিকতা থাকতে হবে।

পুলিশ বাহিনীর মত দেশের সেনা, নৌসহ সমস্ত প্রশাসনিক বাহিনীতে এরকম মানবিক ইউনিট চালু করার দাবী করেন সুপারম্যান খ্যাত শওকত হোসেন বলেন, আমি আমার পেশাগত দ্বায়িত্ব পালন এর সময় শেষে যখন নিজের রেষ্ট এর সময়টুকু আমি অসহায় বেওয়ারিশ মানুষের জন্য কাজ করছি। তিনি বলেন, আমি আমার মানবিকতার দান থেকে এ কাজটা করি। পুলিশে আমার যে কাজ তা আমি সুন্দর করে বুঝিয়ে দেই। যে সময়টা আমার পরিবারে ব্যায় করার কথা, যে সময়টা আমার পদোন্নতি পাবার জন্য পড়ার কথা ,সে সময়টা আমি মানবসেবায় খরচ করি। আমি  স্বপ্ন দেখি সুন্দর বাংলাদেশের।

পুলিশ বাহিনীতে কেনো চাকরি নিলেন এমন এক প্রশ্নে শওকত হোসেন বলেন, বাংলাদেশে মানুষের কাছা কাছি গিয়ে সেবা দেওয়া পথ একমাত্র পুলিশ বাহিনী। পুলিশ যে সেবা দেয় তা অন্য কোন বাহিনীতে আপনি সরাসরি পাবেন না উল্লেখ করে শওকত হোসেন বলেন, পুলিশ বিদেশেও অনেক প্রশংসনীয় কাজ করছে। সরকারি দ্বায়িত্ব পালন ছাড়াও পুলিশ মানুষের ঘরে গিয়ে খাবার পৌছে দিচ্ছে। মানুষের সেবায় পুলিশ কি না করছে এমন প্রশ্ন ছুড়ে দেন শওকত হোসেন।

সিএমপির কমিশনার জনাব মাহাবুবুর রহমানের মানুষের কল্যাণে নিরলস প্রচেষ্টার কথা উল্লেখ করে শওকত হোসেন বলেন, মানবতার সেবায় তার বিভিন্ন নির্দেশনা আমাদের কাজে গতি বৃদ্ধি পাই।

শওকত হোসেন, মানবিক সহায়তায় সামান্য হলেও অসহায় দুস্ত মানুষের উপকার করতে সব শ্রেনী পেশার মানুষদের সাধ্যমত এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে বলেন, অন্তত একদিনের বেতন দিয়ে হলেও মানবতার সেবায় আসুন। এ সময় তিনি চলমান করোনা কালের নিরাপদে থাকার জন্য নিয়মিত স্বাস্থবিধি মেনে চলার প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন।

প্রকাশক: মোসাম্মাৎ মনোয়ারা বেগম। সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ইঞ্জিনিয়ার জিহাদ রানা। সম্পাদক : শামিম আহমেদ যুগ্ন-সম্পাদক : মো:মনিরুজ্জামান। প্রধান উপদেষ্টা: মোসাম্মৎ তাহমিনা খান বার্তা সম্পাদক : মো: শহিদুল ইসলাম ।
প্রধান কার্যালয় : রশিদ প্লাজা,৪র্থ তলা,সদর রোড,বরিশাল।
সম্পাদক: 01711970223 বার্তা বিভাগ: 01764- 631157
ইমেল: sohelahamed2447@gmail.com
  দখলমুক্ত নদীতেই ফেলা হচ্ছে ময়লা, নষ্ট হচ্ছে নদীর সৌন্দর্য   ৪০০ কুমির রপ্তানি করবে বাংলাদেশ   ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মৃত্যুতে প্রেসিডেন্ট-প্রধানমন্ত্রীর শোক   সাবেক এটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার রফিক-উল হক আর নেই   কোন নেতাকর্মী মাদকসংশ্লিষ্ট চিহ্নিত হলে তার দ্বায়ভার দল নেবে না: সরোয়ার   চাঁদপুরে কারাতে প্রশিক্ষণের উদ্বোধন   বরিশালে অনলাইনে মৃৎশিল্পী সম্মেলন ও সম্মাননা প্রদান   আইপিএল: খেলাকে কেন্দ্র করে জুয়া থামাতে ফেনীতে কেবল সংযোগ বন্ধ!   দুর্ঘটনা রোধে প্রত্যেক চালককে ‘ডোপ’ টেস্ট করাতে বললেন প্রধানমন্ত্রী   শিশুর বয়স চার হলেই স্কুল, দুই বছরের প্রাক-প্রাথমিক   ফের করোনার ভয়ংকর রুপ, ফ্রান্সের ৩৮ বিভাগে কারফিউ   লালমনিরহাটে আওয়ামী লীগ-বিএনপির ২ শতাধিক নেতাকর্মীর জাপায় যোগদান   ডিপফেক: সোশ্যাল মিডিয়ায় লক্ষ নারীর ভুয়া পর্ন ভিডিও তৈরি হচ্ছে!   ওমান প্রবাসীর সাথে সালমার প্রেম,অত:পর তিন লাখ টাকা নিয়ে লাপাত্তা প্রতারক   বোয়ালখালীতে স্মরন কালের অভিযান,একশ কোটি টাকার সরকারি জমি উদ্ধার   স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজা উদযাপন করতে সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ`র আহবান   সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়নে জেলেদের সচেতন করছি: বিভাগীয় কমিশনার   বরিশালে এক সপ্তাহে ৩৩৬ জেলের কারাদণ্ড   বরিশালে মাদকের বিষবৃক্ষ নিমূল করতে পুলিশের ব্লক রেইড   ঝালকাঠিতে শহীদ মিনার ভাঙচুরের মামলায় যুব মহিলা লীগ কর্মী গ্রেফতার