বুধবারের অপ্রীতিকর ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চাইলেন বরিশাল সিটি মেয়র সাদিক - দৈনিক বরিশাল ২৪ দৈনিক বরিশাল ২৪বুধবারের অপ্রীতিকর ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চাইলেন বরিশাল সিটি মেয়র সাদিক - দৈনিক বরিশাল ২৪

প্রকাশিতঃ আগস্ট ২১, ২০২১ ১০:১১ অপরাহ্ণ
A- A A+ Print

বুধবারের অপ্রীতিকর ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চাইলেন বরিশাল সিটি মেয়র সাদিক

বিজ্ঞাপন

এ সময় মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ আরও বলেন, আগের মেয়রদের বিরুদ্ধে সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মানববন্ধন করতেন। কিন্তু এবার কর্মকর্তা-কর্মচারী ও পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা মেয়রের জন্য মানববন্ধন করলেন। তিনি বলেন, গত তিন দিন পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা গ্রেপ্তার ও হয়রানির আতঙ্কে কাজে যোগ দেননি। এ সময় তিনি প্রশাসনের প্রতি পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের হয়রানি ও গ্রেপ্তার না করার জন্য আহ্বান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, ‘আমার দলীয় অনেক নেতা-কর্মীকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমাকে যদি গ্রেপ্তারের প্রয়োজন হয়, তাহলে আয়োজন করে বাড়ি ঘেরাও দিয়ে গ্রেপ্তারের প্রয়োজন নেই। নিজেই স্বেচ্ছায় চলে যাব।’ সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, ‘তিন বছর ধরে আমি সরকারি অনুদান পাই না। এটা আমি সাংবাদিকদের আগেই জানিয়েছিলাম, এর পেছনে গভীর চক্রান্ত আছে। বুধবারের ঘটনার মধ্য দিয়ে তা প্রমাণ হলো।’

সংবাদ সম্মেলনে মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, ‘আমাকে যদি গ্রেপ্তারের প্রয়োজন হয়, তাহলে আয়োজন করে বাড়ি ঘেরাও দিয়ে গ্রেপ্তারের প্রয়োজন নেই। নিজেই স্বেচ্ছায় চলে যাব।’

পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের কাজে যোগ দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, ‌‘বরিশালের জনগণের দুর্ভোগের সমাপ্তি হোক। তারা কোনো দোষ করেনি। তাই নাগরিক সেবার ধারাবাহিকতা রক্ষায় সিটি করপোরেশনের কর্মীদের কাজে ফিরে যেতে অনুরোধ জানাচ্ছি।’

যাঁরা মেয়েরের পক্ষে রাস্তায় নেমেছেন, তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন,‌ ‘যাঁরা আমার জন্য রাস্তায় নেমেছেন, প্রতিবাদ করেছেন, তাঁদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। তবে বরিশালের সাধারণ মানুষ যেন কোনো ভোগান্তিতে না পড়ে, আমি সবার কাছে সেই অনুরোধ রাখছি। সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের কাছে আমার আহ্বান, আপনারা কাজে ফিরে যান।’

দলীয় নেতা-কর্মীদের দুর্দশার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমার আহত নেতা-কর্মীরা চিকিৎসা পাচ্ছেন না। দুজন আহত কর্মী চোখ হারিয়েছেন। অনেকের বাড়ি বাড়ি পুলিশ যাচ্ছে। আমি প্রশাসনকে অনুরোধ করছি, দয়া করে আপনারা দলীয় নেতা-কর্মীদের হয়রানি করা বন্ধ করুন।’

মেয়র প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘আমরা কার বিরুদ্ধে দাঁড়াব? ক্ষমতায় আমার দল। এখানে আমি কঠিন হলে সেটা সরকারের ওপরে যাবে, দলের বদনাম হবে। বরিশাল শান্তির শহর। আমি শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান চাই। নাগরিকেরা ভালো থাকুক, এটাই চাই। এই কাজে ব্যর্থ হলে আমি রিজাইন দিয়ে চলে যাব।’

এ সময় মেয়র বুধবার রাতের ঘটনার পুরো সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ এবং ওই ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেন। সংবাদ সম্মেলনে সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র নাইমুল হোসেন ছাড়াও বিভিন্ন উপজেলার চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়ররা উপস্থিত ছিলেন।

বরিশাল সদর উপজেলা পরিষদ কম্পাউন্ডে বুধবার রাতে হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনার পর মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ নগরের কালীবাড়ি সড়কের নিজ বাড়িতেই (সেরনিয়াবাত ভবনে) অবস্থান করছেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত বিপুলসংখ্যক র‍্যাব, পুলিশ তাঁর বাড়ির সামনে অবস্থান নেয়। পরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা সরে যান।সূত্রঃ প্রথম আলো।

দৈনিক বরিশাল ২৪

বুধবারের অপ্রীতিকর ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চাইলেন বরিশাল সিটি মেয়র সাদিক

শনিবার, আগস্ট ২১, ২০২১ ১০:১১ অপরাহ্ণ
বিজ্ঞাপন

এ সময় মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ আরও বলেন, আগের মেয়রদের বিরুদ্ধে সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মানববন্ধন করতেন। কিন্তু এবার কর্মকর্তা-কর্মচারী ও পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা মেয়রের জন্য মানববন্ধন করলেন। তিনি বলেন, গত তিন দিন পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা গ্রেপ্তার ও হয়রানির আতঙ্কে কাজে যোগ দেননি। এ সময় তিনি প্রশাসনের প্রতি পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের হয়রানি ও গ্রেপ্তার না করার জন্য আহ্বান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, ‘আমার দলীয় অনেক নেতা-কর্মীকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমাকে যদি গ্রেপ্তারের প্রয়োজন হয়, তাহলে আয়োজন করে বাড়ি ঘেরাও দিয়ে গ্রেপ্তারের প্রয়োজন নেই। নিজেই স্বেচ্ছায় চলে যাব।’ সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, ‘তিন বছর ধরে আমি সরকারি অনুদান পাই না। এটা আমি সাংবাদিকদের আগেই জানিয়েছিলাম, এর পেছনে গভীর চক্রান্ত আছে। বুধবারের ঘটনার মধ্য দিয়ে তা প্রমাণ হলো।’

সংবাদ সম্মেলনে মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, ‘আমাকে যদি গ্রেপ্তারের প্রয়োজন হয়, তাহলে আয়োজন করে বাড়ি ঘেরাও দিয়ে গ্রেপ্তারের প্রয়োজন নেই। নিজেই স্বেচ্ছায় চলে যাব।’

পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের কাজে যোগ দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, ‌‘বরিশালের জনগণের দুর্ভোগের সমাপ্তি হোক। তারা কোনো দোষ করেনি। তাই নাগরিক সেবার ধারাবাহিকতা রক্ষায় সিটি করপোরেশনের কর্মীদের কাজে ফিরে যেতে অনুরোধ জানাচ্ছি।’

যাঁরা মেয়েরের পক্ষে রাস্তায় নেমেছেন, তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন,‌ ‘যাঁরা আমার জন্য রাস্তায় নেমেছেন, প্রতিবাদ করেছেন, তাঁদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। তবে বরিশালের সাধারণ মানুষ যেন কোনো ভোগান্তিতে না পড়ে, আমি সবার কাছে সেই অনুরোধ রাখছি। সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের কাছে আমার আহ্বান, আপনারা কাজে ফিরে যান।’

দলীয় নেতা-কর্মীদের দুর্দশার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমার আহত নেতা-কর্মীরা চিকিৎসা পাচ্ছেন না। দুজন আহত কর্মী চোখ হারিয়েছেন। অনেকের বাড়ি বাড়ি পুলিশ যাচ্ছে। আমি প্রশাসনকে অনুরোধ করছি, দয়া করে আপনারা দলীয় নেতা-কর্মীদের হয়রানি করা বন্ধ করুন।’

মেয়র প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘আমরা কার বিরুদ্ধে দাঁড়াব? ক্ষমতায় আমার দল। এখানে আমি কঠিন হলে সেটা সরকারের ওপরে যাবে, দলের বদনাম হবে। বরিশাল শান্তির শহর। আমি শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান চাই। নাগরিকেরা ভালো থাকুক, এটাই চাই। এই কাজে ব্যর্থ হলে আমি রিজাইন দিয়ে চলে যাব।’

এ সময় মেয়র বুধবার রাতের ঘটনার পুরো সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ এবং ওই ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেন। সংবাদ সম্মেলনে সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র নাইমুল হোসেন ছাড়াও বিভিন্ন উপজেলার চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়ররা উপস্থিত ছিলেন।

বরিশাল সদর উপজেলা পরিষদ কম্পাউন্ডে বুধবার রাতে হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনার পর মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ নগরের কালীবাড়ি সড়কের নিজ বাড়িতেই (সেরনিয়াবাত ভবনে) অবস্থান করছেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত বিপুলসংখ্যক র‍্যাব, পুলিশ তাঁর বাড়ির সামনে অবস্থান নেয়। পরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা সরে যান।সূত্রঃ প্রথম আলো।

প্রকাশক: মোসাম্মাৎ মনোয়ারা বেগম। সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ইঞ্জিনিয়ার জিহাদ রানা। সম্পাদক : শামিম আহমেদ যুগ্ন-সম্পাদক : মো:মনিরুজ্জামান। প্রধান উপদেষ্টা: মোসাম্মৎ তাহমিনা খান বার্তা সম্পাদক : মো: শহিদুল ইসলাম ।
প্রধান কার্যালয় : রশিদ প্লাজা,৪র্থ তলা,সদর রোড,বরিশাল।
সম্পাদক: 01711970223 বার্তা বিভাগ: 01764- 631157
ইমেল: sohelahamed2447@gmail.com
  সড়ক দুর্ঘটনায় বরিশালের সাংবাদিক মাসুদ রানা নিহত   ডিসির পাশে মুক্তিযোদ্ধা ও রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের সম্মানে আসন   ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা নিয়ে তর্ক, বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন   রিচার্লিসনের অবিশ্বাস্য গোলে ব্রাজিলের উড়ন্ত সূচনা   ইনজুরিতে নেইমার?   দেশের শ্রেষ্ট জেলা প্রশাসক পদক পেলেন বরিশালের ডিসি জসিম উদ্দিন হায়দার   শেয়ার দিন, ছোট্ট শিশু আয়াত কে খুঁজে পেতে সহায়তা করুন   একজন সচেতন অভিভাবক ছিলেন আনিসুর রহমান   বরিশালে ৩ বিড়ালের নাম হলো শাকিব খান, অপু বিশ্বাস, বুবলী   চট্টগ্রামে বিএনপির গণ-সমাবেশে জনস্রোত   নর্থ বেঙ্গল কিন্ডারগার্টেন এন্ড প্রি-ক্যাডেট স্কুল সোসাইটির শিক্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত   বরিশালের শ্রেষ্ঠ বিদ্যোৎসাহী সমাজকর্মী হলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারজানা ওহাব   ঢাকা-বরিশাল রুটে বিমান সার্ভিস বন্ধের ষড়যন্ত্র!   যাত্রী সংকটে বন্ধ হলো ঐতিহ্যবাহী প্যাডেল স্টিমার   বাবুগঞ্জ বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি   শেরপুরে স্কুল ছাত্রের সাইকেল চুরি, কিনে দিলেন এসপি কামরুজ্জামান   বরিশালে জাপায় সংঘর্ষঃ ব্যানারে রওশনের ছবি ব্যবহারই মূল কারণ   সমাজ সেবায় অবদান রাখায় গুণীজন সম্মাননা পেলেন অধ্যক্ষ তাহমিনা আকতার   দেশবাসীর প্রশংসায় ভাসছেন খুদে হাফেজ তাকরিম   বরিশালে জাপার কো-চেয়ারম্যানের সামনেই দুই পক্ষের সংঘর্ষ জেলা সাংগঠনিক সভা পন্ড