দৈনিক বরিশাল ২৪নেই আশ্রয় কেন্দ্র দুর্যোগ ঝুঁকিতে পটুয়াখালীর ১২টি চরের মানুষ! | দৈনিক বরিশাল ২৪

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ০৯, ২০১৯ ১১:৫৪ অপরাহ্ণ
A- A A+ Print

নেই আশ্রয় কেন্দ্র দুর্যোগ ঝুঁকিতে পটুয়াখালীর ১২টি চরের মানুষ!

শামীম আহমেদ, বরিশালঃ  বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় বুলবুল উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে। ফলে দুর্যোগ ঝুঁকিতে দক্ষিণাঞ্চলের বৃহত্তর বরিশালের উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার আশ্রয় কেন্দ্র না থাকা ১২টি চর এলাকার বাসিন্দারা। তবে দুর্যোগ মোকাবেলায় সকল ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় প্রশাসন। তাদের (প্রশাসনের) দাবি, আশ্রয় কেন্দ্র না থাকা চরগুলোর মানুষদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে আনা হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বভাসে বলা হয়েছে, প্রবল শক্তি নিয়ে ধেয়ে আসা ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এর প্রভাবে ৭ ফুট পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা করা হচ্ছে। আরও বলা হয়, শনিবার রাতে বাংলাদেশ ও ভারতের উপকূলে আঘাত হানতে পারে বুলবুল। পায়রা সমুদ্র বন্দরের নিকটবর্তী নদী ও সাগর বেষ্টিত রাঙ্গাবালী উপজেলার অবস্থান হওয়ায় এ ঘূর্ণিঝড়ের আতঙ্কে এখানকার মানুষ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার রাঙ্গাবালী ইউনিয়নের চরকাশেম, চর মাদারবুনিয়া, কলাগাছিয়া চর, চরকানকুনি, ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নের চরইমারশন, চরনজির, চরতোজাম্মেল, কাউখালী চর ও চালিতাবুনিয়া ইউনিয়নের চরলতা নামক চরে ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র না থাকায় সেখানকার মানুষের দুর্যোগকালীন অনেক বেশি ঝুঁকি রয়েছে।

পাশাপাশি চালিতাবুনিয়া ইউনিয়নের মধ্য চালিতাবুনিয়া, বিবির হাওলা ও গরুভাঙা গ্রামের পাঁচ কিলোমিটার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বেড়িবাঁধ বিধ্বস্ত থাকায় এবং একমাত্র ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্রটি নদী ভাঙনে বিলীন হয়ে যাওয়ায় সেখানকার মানুষদের মধ্যে দুর্যোগ আতঙ্কে রয়েছে। ওই উপজেলার মোট ১২টি চরে আশ্রয় কেন্দ্র না থাকায় সেখানকার মানুষের দুর্যোগ ঝুঁকি বেশি।

স্থানীয় প্রবীণ ব্যক্তিরা বলছেন, নভেম্বর মাস উপকূলের জন্য আতঙ্কের মাস। ১৯৭০ সালের ১২ নভেম্বর ও ২০০৭ সালের ১৫ নভেম্বর ঘূর্ণিঝড় সিডরের আঘাতে উপকূলীয় এলাকা লন্ডভন্ড হয়েছিল। যার কারণে নভেম্বর মাসের এই ঘূর্ণিঝড়টি উপকূলের মানুষদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে দিয়েছে।

রাঙ্গাবালী উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সচিব পিআইও তপন কুমার ঘোষ বলেন, যেসব চরে আশ্রয় কেন্দ্র নেই, সেখানকার মানুষদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে আনা হয়েছে। আর যারা এখনও আছে, তাদেরকে জোর করে হলেও নিরাপদস্থানে নিয়ে আসার জন্য বিভাগীয় কমিশনারের নির্দেশনা রয়েছে।

এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাশফাকুর রহমান বলেন, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় ইতোমধ্যে সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। মানুষদের সতর্ক করতে মাইকিং করা হয়েছে। ৫৪টি সাইক্লোন শেল্টার খুলে দেওয়া হয়েছে। দুর্গম এলাকার মানুষদের নিরাপদে সরিয়ে আনা হয়েছে বলেও তিনি উলে­খ করেন।

 বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম

নেই আশ্রয় কেন্দ্র দুর্যোগ ঝুঁকিতে পটুয়াখালীর ১২টি চরের মানুষ!

শনিবার, নভেম্বর ৯, ২০১৯ ১১:৫৪ অপরাহ্ণ

শামীম আহমেদ, বরিশালঃ  বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় বুলবুল উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে। ফলে দুর্যোগ ঝুঁকিতে দক্ষিণাঞ্চলের বৃহত্তর বরিশালের উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার আশ্রয় কেন্দ্র না থাকা ১২টি চর এলাকার বাসিন্দারা। তবে দুর্যোগ মোকাবেলায় সকল ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় প্রশাসন। তাদের (প্রশাসনের) দাবি, আশ্রয় কেন্দ্র না থাকা চরগুলোর মানুষদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে আনা হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বভাসে বলা হয়েছে, প্রবল শক্তি নিয়ে ধেয়ে আসা ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এর প্রভাবে ৭ ফুট পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা করা হচ্ছে। আরও বলা হয়, শনিবার রাতে বাংলাদেশ ও ভারতের উপকূলে আঘাত হানতে পারে বুলবুল। পায়রা সমুদ্র বন্দরের নিকটবর্তী নদী ও সাগর বেষ্টিত রাঙ্গাবালী উপজেলার অবস্থান হওয়ায় এ ঘূর্ণিঝড়ের আতঙ্কে এখানকার মানুষ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার রাঙ্গাবালী ইউনিয়নের চরকাশেম, চর মাদারবুনিয়া, কলাগাছিয়া চর, চরকানকুনি, ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নের চরইমারশন, চরনজির, চরতোজাম্মেল, কাউখালী চর ও চালিতাবুনিয়া ইউনিয়নের চরলতা নামক চরে ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র না থাকায় সেখানকার মানুষের দুর্যোগকালীন অনেক বেশি ঝুঁকি রয়েছে।

পাশাপাশি চালিতাবুনিয়া ইউনিয়নের মধ্য চালিতাবুনিয়া, বিবির হাওলা ও গরুভাঙা গ্রামের পাঁচ কিলোমিটার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বেড়িবাঁধ বিধ্বস্ত থাকায় এবং একমাত্র ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্রটি নদী ভাঙনে বিলীন হয়ে যাওয়ায় সেখানকার মানুষদের মধ্যে দুর্যোগ আতঙ্কে রয়েছে। ওই উপজেলার মোট ১২টি চরে আশ্রয় কেন্দ্র না থাকায় সেখানকার মানুষের দুর্যোগ ঝুঁকি বেশি।

স্থানীয় প্রবীণ ব্যক্তিরা বলছেন, নভেম্বর মাস উপকূলের জন্য আতঙ্কের মাস। ১৯৭০ সালের ১২ নভেম্বর ও ২০০৭ সালের ১৫ নভেম্বর ঘূর্ণিঝড় সিডরের আঘাতে উপকূলীয় এলাকা লন্ডভন্ড হয়েছিল। যার কারণে নভেম্বর মাসের এই ঘূর্ণিঝড়টি উপকূলের মানুষদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে দিয়েছে।

রাঙ্গাবালী উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সচিব পিআইও তপন কুমার ঘোষ বলেন, যেসব চরে আশ্রয় কেন্দ্র নেই, সেখানকার মানুষদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে আনা হয়েছে। আর যারা এখনও আছে, তাদেরকে জোর করে হলেও নিরাপদস্থানে নিয়ে আসার জন্য বিভাগীয় কমিশনারের নির্দেশনা রয়েছে।

এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাশফাকুর রহমান বলেন, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় ইতোমধ্যে সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। মানুষদের সতর্ক করতে মাইকিং করা হয়েছে। ৫৪টি সাইক্লোন শেল্টার খুলে দেওয়া হয়েছে। দুর্গম এলাকার মানুষদের নিরাপদে সরিয়ে আনা হয়েছে বলেও তিনি উলে­খ করেন।

সম্পাদক ও প্রকাশক : খন্দকার রাকিব ।
ফকির বাড়ি, ৫৫৪৫৪ বরিশাল।
মোবাইল: ০১৭২২৩৩৬০২১
ইমেইল : rakibulbsl@gmail.com, barisalcrimenews@gmail.com
  সৈয়দপুরে আকতার হোসেন ফেকু’র ব্যতিক্রমধর্মী ত্রান বিতরণ   পন্য আছে ক্রেতা নেই   চট্টগ্রামে অসহায়দের পাশে তিন ভায়রা, ত্রাণ পেলো ১৫০ পরিবার   একদিনে আরও ৪১ করোনা রোগী শনাক্ত, পাঁচ জনের মৃত্যু   শর্ত দিয়ে কাউকে কাজে আনবো না প্রয়োজনে বাইরে থেকে ডাক্তার নিয়ে আসবো: প্রধানমন্ত্রী   নিজ অর্থে অসহায় মানুষদের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলেন সাংবাদিক বকুল   চট্টগ্রামের অলি-গলিতে ‘ফ্রি সবজি বাজার’   বরিশালে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন, বিনা প্রয়োজনে বের হলেই গ্রেপ্তার   ত্রাণ দিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী, বজায় রাখলেন সামাজিক দূরত্ব   এসএসসির ফল যাবে অভিভাবকদের মোবাইলে   চাঁপাইনবাবগঞ্জে দরিদ্রদের খাদ্যসহয়তা অব্যহত রেখেছেন কৃষকলীগ নেতা   মুহুর্তের সব খবর জানতে পাঠকের ভরসা অনলাইন নিউজ পোর্টাল   নবীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় মটরসাইকেল আরোহী নিহত   বরিশালে ১০টাকা কেজিতে চাল বিক্রি শুরু, মানছেনা কেউ সামাজিক দূরত্ব   বরিশালে পুলিশের হাতে ইয়াবা ব্যবসায়ি আটক   ফেসবুকে পোস্ট, খাবার নিয়ে প্রতিবন্ধীর বাড়িতে আগৈলঝাড়ার ওসি আফজাল   আজ থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের সব ইপিজেড বন্ধ ঘোষণা   টঙ্গীতে আগুনে পুড়ল শতাধিক ঝুটের গুদাম   অসহায় মানুষের পাশে একদল তরুণ   হাসপাতালে মুমূর্ষ এসএসসি পরীক্ষার্থী, সাহায্যের আবেদন